বগুড়া, নাটোর ও রংপুর অঞ্চলের বার্ষিক কর্ম-পরিকল্পনার অগ্রগতি পর্যালোচনা সভা

২৫শে অক্টোবর ২০১৯ বগুড়ার পল্লী উন্নয়ন একাডেমী (আরডিএ) তে পল্লী দারিদ্র্য বিমোচন ফাউন্ডেশন এর বগুড়া, নাটোর ও রংপুর অঞ্চলের বার্ষিক কর্ম-পরিকল্পনার অগ্রগতি পর্যালোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় বগুড়া, নাটোর ও রংপুর অঞ্চলের সকল সহকর্মী অংশগ্রহণ করেন। সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পিডিবিএফ এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক কৃষিবিদ মোঃ আমিনুল ইসলাম, বিশেষ অতিথি ছিলেন জনাব মোঃ সোলায়মান, পরিচালক মানব সম্পদ ও উন্নয়ন এবং অর্থ, জনাব মহিউদ্দিন আহমেদ পান্নু, অতিরিক্ত পরিচালক,মানব সম্পদ উন্নয়ন ও যোগাযোগ, ড. মোঃ মনারুল ইসলাম, বেগম মনিজা বেগম, জনাব শহীদুল হক খান, জনাব মোঃ শাহাদত হোসেন, জনাব মোঃ শাহেদুর রহমান খান, জনাব মোঃ শফিকুল ইসলাম প্রমুখ। সভায় সভাপতিত্ব করেন জনাব গৌতম ভৌমিক। সভার শুরুতে বগুড়া, নাটোর ও রংপুর অঞ্চলের সকল সহকর্মীদের পক্ষ থেকে ব্যবস্থাপনা পরিচলককে ফুল ও ক্রেস্ট প্রদানের মাধ্যমে বরণ করে নেয়া হয়।
সভায় ব্যবস্থাপনা পরিচালক নিজেকে মাঠের মানুষ হিসেবে পরিচয় দিয়ে বলেন সহকর্মীদের চাহিদা আমি বুঝি। পিডিবিএফ এর সহকর্মীদের মাঝে কোন ভেদাভেদ নাই। যদিও পিডিবিএফ এর ক্রান্তি কালে তিনি দায়িত্ব পেয়েছেন তবুও সমবায় মন্ত্রণালয়ের ৯টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে পিডিবিএফ অত্যান্ত সুনামের সাথে কাজ করে যাচ্ছে। পিডিবিএফ এর মাঠের কাজকে সু-সংগঠিত করে পিডিবিএফকে সামনে এগিয়ে নিয়ে যেতে হবে। তিনি উপস্থিত সবাইকে উদ্দেশ্য করে বলেন আমরা যেন কোন অনিয়ম না করি, আত্বসাৎকারীকে আমরা ঘৃনা করি। আত্মসাৎকারীর ব্যবপারে জিরো টলারেন্স নীতি অনুষরন করা হবে। ইউডিবিওদের ফিল্ড ভিজিট বাড়াতে হবে এবং কার্যালয়ে অবস্থান করতে হবে। প্রত্যেক কার্যালয়ের ইউডিবিওগন সহকর্মীদের সাথে সন্ধায় চা চক্রের আয়োজন ও প্রত্যেক ব্লকের ডব্লিউসিএফ পর্যবেক্ষন করে ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন। ভবিষ্যতে সকল সহকর্মীদের মোবাই ট্রাকিং সিস্টেমে আনা হবে ও প্রতি বৃহস্পতিবার ভিডিও কনফারেন্স এর মাধ্যমে প্রধান কার্যালয়ের সাথে স্টাফ মিটিং করা হবে। এমডি মহোদয আরো বলেন আমরা তিনটি কাজ করবঃ (১) প্রত্যেকে নিজ কর্ম এলাকায় থাকব (২) সবার আগে ফিল্ডে যাবএবং (৩) প্রতিদিন প্রতি এফও ৫জন খেলাপী সদ্যস্যদের নিকট হতে ৫০০ টাকা মেয়াদ খেলাপী আদায় করব । তাহলে আমাদের সকল চাওয়া পাওয়া পূর্ণ হবে ইনশাল্লাহ।
সভায় মুক্ত আলোচনার মাধ্যমে মাঠপর্যায়ের ১০০ জনেরও অধিক সহকর্মীদের কাছ থেকে প্রায় ৮০টি প্রস্তাব/পরামর্শ পাওয়া যায়। এসকল পরামর্শ নোট ডাউন করা হয় এবং প্রতিটি মতামতের ফিডব্যাক প্রদান করা হয়। মুক্ত আলোচনা পরিচালনা করেন যুগ্মপরিচালক মানব সম্পদ ব্যবস্থাপনা জনাব শাহেদুর রহমান খান ও যুগ্ম পরিচালক মাঠ পরিচালন জনাব মোঃ শফিকুল ইসলাম।
সভায় ড. মনারূল ইসলাম যুগ্ম পরিচালক নীতি ও পরিকল্পনা সকল স্তরের কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের জব ডেসক্রিপশন নিয়ে আলোচনা করেন। বিশেষ করে ডিডি, এসএডি, ইউডিবিওদের, মাঠ কর্মকর্তা/মাঠ সংগঠকদের করনীয় নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করেন।
মাঠ পরিচালন বিভাগের পর্যালোচনা সভা পরিচালনা করেন জনাব মোঃ সোলায়মান, পরিচালক মানব সম্পদ ও উন্নয়ন এবং অর্থ,জনাব মোঃ শাহেদুর রহমান খান, জনাব মোঃ শফিকুল ইসলাম যুগ্ম পরিচালক প্রধান কার্যালয়। পর্যালোচনা সভায় নিম্ন পারফরমেন্সধারী তিনটি কার্যালয়ের সহকর্মীদের সাথে আলোচনা পর্যালোচনার মাধ্যমে তাদের পিছিয়ে পড়ার কারন সমূহ চিহ্নিত করেন এ সমস্যা থেকে উ্ত্তরণের উপায় সম্পর্কে আলোচনা করেন।
সভায় আরো গুরুত্বপূর্ণ বক্তব্য রাখেন জনাব মহিউদ্দিন আহমেদ পান্নু, অতিরিক্ত পরিচালক,মানব সম্পদ উন্নয়ন ও যোগাযোগ, ড. মোঃ মনারুল ইসলাম, বেগম মনিজা বেগম, জনাব শহীদুল হক খান, জনাব মোঃ শাহাদত হোসেন, জনাব মোঃ শাহেদুর রহমান খান, জনাব মোঃ শফিকুল ইসলাম , জনাব মোঃ মামুনুর রশিদ, জনাব শামছুদোহা চৌধুরী, জনাব, মোঃ ইউনুছ আলী উপ পরিচালক, নাটোর, জনাব মোঃ জনাব আঃ রাজ্জাক, মোঃ আমিরুল হাসান, সভাপতি সিবিএ।
বগুড়ার এই ওয়ার্কসপের মাধ্যদিয়ে পিডিবিএফ এর শতভাগ সহকর্মীদের সাথে প্রধান কার্যালয়ের কর্মকর্তাদের সফল যোগাযোগ স্থাপন হয় যা পিডিএফ এর বার্ষিক লক্ষমাত্রা অর্জনে ও সার্বিক কল্যানে অবদান রাখবে । এরই মাধ্যমে পিডিবিএফএর সকল অঞ্চলের সহকর্মীদের ওয়ার্কসপ শেষ হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published.